উন্মাদনায় কবি

“উন্মাদনায় কবি”
তনয় কান্তি সরকার

আমি সনাতন,
আমি ইসলামের ইতিহাসে পড়ি,
আমি অসাম্প্রাদায়িক, তাই
সৃষ্টিকর্তায় বিশ্বাসী।

আমি লিখতে জানিনা ছন্দ,
যেতায় পাবে তুমি আনন্দ।
আমি তো এক উন্মাদনায় কবি,
তাই আমি পাগলামিতেই ভাবি।

আমি তো আগুনে পুড়তে চাই,
যেখানে দুঃখ হয়ে যায় ছাই।
আমি দূর্গা পূজোতে যাই,
আমি মুসলিমে ভাই ভাই।

আমি বর্ণবাদে ঘৃণিত,
তাই ভালোবাসা নিয়ে বৈদিকও।
আমি যিশু খ্রিস্টেও আছি,
তাই বৌদ্ধদের নিয়েও বাঁচি।

আমার লিখাতে নাই ছন্দ,
তাই-বলি, দূরে থাকো তুমি
সাম্প্রদায়িকতার মন্দ।

আমি যজ্ঞে আহূতি ঘি,
আবার নামাজে পোশাকে শ্রী।
আমি মসজিদে পড়েছি নামাজ,
তথাপি পূজা-অর্চনাতেও আজ।

কেউ বলছে আমায় পাগল,
আমি উন্মাদনায় অতল।
আমার ভাবনা চিন্তা নাই,
আমার প্রেমিকা ঈশ্বরী তাই।

আমি প্রেমিকা- কে ভালোবসি,
আবার বিদ্রোহ-আন্দোলনেও মিশি।
আমি খুঁজে পাইনা মোর মুক্তি,
আমায় আঁকড়ে ধরছে মায়ার আসক্তি।

তুমি কি আমাকে পড়তে চাও?
সাবধান! ছন্দ না মিলিয়ে
আমার পাগলামিটা দেখে যাও।

আমি কি পাগল?
তবে কি আমার কি মুক্তি হবে?
যদি, আমার প্রেমিকা পড়ে দেখে,
এই লিখাটাও স্বার্থকতা খুঁজে পাবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *