অন্বেষণ

কবিতা প্রেমের কবিতা

প্রিয়,খুঁজি তোমায়..
তোমায় খুঁজি এই বালির আস্তরণে
প্রতিটি কণায় কণায়।
ভাবিনি কভু হারাবে তুমি
ভেসে যাবে কোন স্রোতে।

সেদিন বিকেলের কথা মনে পড়ে..
মনে পড়ে তোমার ভুবন রাঙানো হাসি।
তুমি পড়েছিলে কালো রঙের মসলিন শাড়ি,আর-
আমি পড়েছিলাম ধবধবে সাদা পাঞ্জাবি।
লোকে বলতো সাদা-কালো পরস্পর বিপরীত,
কিন্তু আমি কি ভাবতাম জানো?
কালো আছে বলেই সাদার কদর,আর-
সাদার জন্য কালোর।
তোমাকে পেয়েছিলাম আমি আমার-
জীবনের পূর্ণতা স্বরূপ।
কিন্তু হায়,বিধাতার মর্তে সেদিন বাজবে এমন সুর..
তা কখনো ভাবিনি।

তোমার দিকে তাকিয়ে থাকলে কি মনে হতো,জানো?
মনে হতো তুমি একরাশ ফুলের বাগান,
আর আমি ছোট্ট একটা পাখি হয়ে-
এক কোণায় বসে তোমায় দেখছি🤗
আমি তোমার হাসির আওয়াজ এখনো শুনি।
কানে বাজে প্রতিনিয়ত।
সেদিন বিকালে যদি তুমি হাতটি ছেড়ে না দিতে,
যদি সেদিন অভিমান না করতে,
যদি সেদিন আগলে রাখতে বুকে,আজ-
তাহলে দেখাতাম কতটা ভালোবাসি😥
সেদিন তুমি একা একা অভিমানে,,
দাঁড়িয়ে ছিলে সমুদ্র তটে,
আছমকা এক ধমকা হাওয়া কেড়ে নিল তোমায়,,
ওগো প্রিয়,আজো খুজি তোমায়।
আজো খুঁজি সেই বালির আস্তরণে
প্রতিটি কণায় কণায়😪

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *